সমাজকর্ম পেশার বিকাশ

যদিও ষাটের দশকে অন্যান্য দেশের মত বাংলাদেশেও সমাজকর্ম পেশার বিকাশ ঘটে পাশ্চাত্যের উন্নত দেশগুলির প্রত্যক্ষ সুপারিশের মাধ্যমে। সমাজকর্ম পেশার বিকাশ ঘটে কোন দেশে সেটা জানার জন্য আপনি অনুগ্রহ করে এই অধ্যায়টি সম্পূর্ণ পড়ুন।

ইতিপূর্বে ভারতীয় উপমহাদেশে বৃটিশ শাসন আমলে আধুনিক সমাজকল্যাণের সূত্রপাত হয়েছিল আমেরিকান মিশনারীদের মাধ্যমে। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর আর্থ-সামাজিক অবস্থার সৃষ্ট পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে আমেরিকান মিশনারীরা সমাজসেবা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ভারতে আসে।

সমাজকর্মের সংজ্ঞা

সমাজকর্ম অভিধানের ব্যাখ্যায় বলা হয়, “সমাজকর্ম হচ্ছে একটি ব্যবহারিক বিজ্ঞান যা মানুষকে মনো-সামাজিক ভূমিকা পালন ক্ষমতার একটি কার্যকর পর্যায়ে উপনীত হতে সাহায্য করে এবং মানুষের মঙ্গলকে শক্তিশালী-করণে কার্যকর সামাজিক অবস্থান্তর আনয়ন করে।”

সমাজকর্ম তত্ত্ব বিকশিত করেন কে?

মনো-সামাজিক তত্ত্ব, যেটা এরিক এরিকসন ১৯৫০-এর দশকের সময় বিকাশ করেছিলেন, এটি ছিল সামাজিক কাজের মূলনীতি। যা পার্সন-ইন-এনভায়রনমেন্ট (পিআইই) তত্ত্ব হিসাবেও উল্লেখ করা হয়, মনো-সামাজিক তত্ত্বের মাধ্যমে বিশ্বাস করা যায় যে একজন ব্যক্তি পর্যায়ক্রমে একটি মাত্র ব্যক্তিত্ব বিকাশ করে থাকে, যা হয়ে থাকে পরিবেশ, পরিবার এবং সম্প্রদায়ের সঙ্গে সম্পর্কের ভিত্তিতে।

শিক্ষার ও সমাজকর্মের জনক কে ছিলেন?

অ্যানা এল. ডস-কে সমাজকর্ম শিক্ষার জনক এবং জেন অ্যাডামসকে সমাজকর্মের জনক বলা হয়।

সর্বপ্রথম পেশা হিসেবে সমাজকর্মকে, কে সংজ্ঞায়িত করেন?

যদিও হিসাব মতে, জেন অ্যাডামস ইতিহাসের প্রথম ব্যক্তি ছিলেন না কিন্তু তিনি সামাজিক পরিবর্তনের প্রচার করেছিলেন। মূলত তিনিই প্রথম ব্যক্তি যিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সমাজকর্মকে পেশাদারি করণ করেছিলেন এবং আমরা এখনও সেগুলি অনুশীলন মডেল হিসেবে ব্যবহার করি তার জন্য তিনিই সবচেয়ে বেশি দায়ী ব্যক্তিত্ব৷

সামাজিক কাজের প্রাথমিক সূচনার ইতিবৃত্ত:

মূলত একটি পেশা হিসাবে, সামাজিক কাজগুলি আনুষ্ঠানিকভাবে ১৯ শতকে প্রকাশিত একটি গোলমাল হিসাবে প্রথম পর্যায়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্যের মধ্যে পূর্ণতা পায়। পাশাপাশি সামন্ততন্ত্রের বিলুপ্তির পর, যারা দারিদ্র শ্রেনীর লোক ছিল তাদেরকে দেখা হত সামাজিক শৃঙ্খলার জন্য সরাসরি হুমকি হিসেবে, সে সময়কার সরকার দরিদ্র আইন তৈরী করে এবং তাদের তত্ত্বাবধান করার জন্য একটি সংগঠিত ব্যবস্থা প্রস্তুত করে।

সামাজিক কল্যাণ কার্যক্রম ব্যবহারের প্রথম দেশ কোনটি?

এসএসএ ইতিহাস সংরক্ষণাগার এর মাধ্যমে জানা যায় যে, ১৮৮৯ সালে জার্মান চ্যান্সেলর, অটো ভন বিসমার্ক এর মাধ্যমে ডিজাইন করা একটি বৃদ্ধ বয়সের সামাজিক বীমা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। কর্মসূচি গ্রহণ করার ফলে জার্মানি এ কাজের জন্য বিশ্বের প্রথম দেশ হয়ে ওঠে।

আরও দেখুনঃ সময় তালিকা প্রণয়নের প্রয়োজনীয়তা ব্যাখ্যা করো

কবে হয়েছিল সমাজকর্ম পেশার বিকাশ?

যেহেতু ১৮৯৮ সালের গ্রীষ্মকালীন সময়ে কলম্বিয়ার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম সামাজিক কর্মের ক্লাস নেওয়া হয়েছিল, সেজন্য সমাজকর্মীরা প্রয়োজনে বিভিন্ন লোকদের সেবা করার নিমিত্তে ব্যক্তিগত এবং দাতব্য সংস্থাগুলির অগ্রগতির পথ দেখিয়েছেন। সে সময় হতে অদ্যাবধি সমাজকর্মীরা সমাজের বিভিন্ন চাহিদাগুলিকে মোকাবেলা করে চলেছেন এবং ক্ষেত্রবিশেষ আমাদের দেশের সামাজিক সমস্যাগুলিকে জনসাধারণের কাছে উপস্থাপন করছেন।

সামাজিক কাজ শুরু হয় কোন দেশে?

পেশাগত ভাবে সামাজিক কাজের উত্থান হয় ১৯ শতকে ইংল্যান্ডে, এবং শিল্প বিপ্লবের ফলে সামাজিক ও অর্থনৈতিক আবির্ভাবের শিকড় ছিল, বিশেষ করে এ কারণে জনসাধারণের শহর-ভিত্তিক দারিদ্র্য এবং এর সাথে সম্পর্ক যুক্ত সমস্যাগুলি মোকাবেলা করার জন্য শুরু হয় সামাজিক সংগ্রাম।

সমাজকর্মের মাধ্যমে কোন পেশার বিকাশ হয়?

১৯ শতকের শেষ ভাগে ইউরোপ ও উত্তর আমেরিকায় সামাজিক প্রশ্ন, বৃদ্ধিমূলক উৎপাদনক্ষম এবং সমৃদ্ধ একটি অর্থনীতিতে দারিদ্র্য বৃদ্ধির প্রচলিত মতের বিরুদ্ধের মত মোকাবেলায় স্বেচ্ছাসেবী প্রচেষ্টার মাধ্যমে সমাজকর্ম পেশার উদ্ভব ঘটে।

কোন দেশে সমাজকর্ম পেশার বিকাশ ঘটে

ইংল্যান্ডে সর্বপ্রথম সমাজকর্মের সূত্রপাত হলেও, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সর্বপ্রথম সমাজকর্মকে পেশাগত মর্যাদায় প্রতিষ্ঠিত করার পাশাপাশি এর বিকাশ ঘটায় এবং সেখানে পেশাদার সমাজকর্মের ধারণা, পদ্ধতি ও কৌশলের পূর্ণতা লাভ করে।

সারসংক্ষেপ

সমাজকর্মীরা মনোরোগ বিশেষজ্ঞ এবং মনো-বৈজ্ঞানিকদের সাথে ১৯ শতকের গোড়ার দিকে একসাথে কাজ করা আরম্ভ করেন। সে সময়ে প্রাথমিকভাবে মধ্যবিত্ত ক্লায়েন্টদের পরিষেবা প্রদানের জন্য ১৯২৭ সালের মধ্যে ১০০ টিরও অধিক শিশু নির্দেশিকা ক্লিনিক খোলা হয়েছিল। আশাকরি এই প্রবন্ধের মাধ্যমে আপনারা সমাজকর্ম পেশার বিকাশ ঘটে কোন দেশে সে সম্পর্কে একটা পরিস্কার ধারণা পেয়ে থাকবেন।

I hope you are enjoying this article. Thanks for visiting this website.